গোছানো/কাঠামোগত সাক্ষাৎকার অনেকটা ছোটখাট জরিপের মতো। আনুষ্ঠানিক কাগজপত্রের অনুপস্থিতিতে এভাবেই আপনি গোছানো উপায়ে ডেটা তৈরি করে নিতে পারেন। এজন্য আপনার প্রয়োজন হবে সাধারণ কিছু নির্দিষ্ট প্রশ্নের তালিকা। যেখান থেকে আপনি কিছু কোয়ানটিটিভ ডেটা পাবেন বলে আশা করতে পারেন। যদিও আপনাকে সবসময়ই তাৎক্ষণিকভাবে চিন্তা করতে পারতে হবে। কখনো কোনো ব্যক্তিগত আলাপচারিতার সময় বাড়তি কিছু প্রশ্নও জুড়ে দিতে হতে পারে।

১. এমন একটি পূর্ণাঙ্গ প্রশ্নতালিকা তৈরি করুন, যাতে সম্ভাব্য সত্য তথ্যগুলো উঠে আসবে। যেমন: সূত্রকে জিজ্ঞেস করুন, প্রথমবার কখন এরকম ঘটনা ঘটেছিল, তা তিনি মনে করতে পারেন কিনা। এই উপায়ে আপনি সমস্যাটা কখন থেকে শুরু হলো, তা জানতে পারবেন (উদাহরণস্বরূপ, ধর্ষণ বা হামলা, ফসলহানি, সড়কের ক্ষতি, গুম), এর সম্ভাব্য কারণ (যেমন তিনি বলতে পারেন যে ঘটনার সময় ‘ক‘ও সেখানে ছিলেন), এবং অন্যদের প্রতিক্রিয়া কেমন ছিল (যেমন আমরা ‘এক্স’ শহরে চলে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম)।

২. সব তথ্যদাতাকে একই ধরনের প্রশ্ন করুন।

৩. প্রশ্নগুলো যথাযথভাবে করুন, সুনির্দিষ্টভাবে বিস্তারিত জানার চেষ্টা করুন এবং উত্তরগুলো যথাযথভাবে নথিবদ্ধ করুন। এটি এমন এক ধরনের সাক্ষাৎকার পদ্ধতি যেখানে ক্লোজ এন্ডেড – অর্থ্যাৎ, যথাযথ জবাব পেতে হ্যাঁ বা না সূচক এক শব্দেই উত্তর হয় এমন ধরণের – প্রশ্ন বেশ কাজে লাগে। যদিও আপনাকে খোলামেলা ও সুক্ষ্ম প্রতিক্রিয়া পাওয়ার চেষ্টাও করতে হবে। সামষ্টিকভাবে এসব জবাব আপনার নিজস্ব তথ্যভান্ডার তৈরিতে কাজে আসবে।