যোগাযোগের ক্ষেত্রে সর্বসাম্প্রতিক প্রবণতা হচ্ছে ইমেইলকে পুরোপুরি এড়িয়ে চলে এবং হোয়াটসঅ্যাপ, টেলিগ্রাম, ফেসবুক মেসেঞ্জার বা স্ন্যাপচ্যাট এর মত ইন্সট্যান্ট মেসেঞ্জার বা তাৎক্ষণিক বার্তা বিনিময় পরিষেবার ওপর নির্ভর করা। সেকেন্ডের মধ্যে আপনি বিশ্বজুড়ে তথ্য বা নথি আদান-প্রদান করতে পারেন। হোয়াটসঅ্যাপ-এর মতো সেবাদাতারা তাদের এন্ড-টু-এন্ড এনক্রিপশনের কথা বলতে পারে; তবে, কেউই শতভাগ সুরক্ষার কথা বলতে পারে না। সাধারণত, মেসেঞ্জারগুলোর মাধ্যমে গোপনীয় তথ্য আদান-প্রদান বিপদজনক। অন্যান্য কিছু টেক্সট মেসেজিং অ্যাপ্লিকেশন তুলনামূলক সুরক্ষিত এন্ড-টু-এন্ড এনক্রিপশন সেবা দিয়ে থাকে যেমন সিগন্যাল, টেলিগ্রাম বা ওয়্যার, যা আইওএস এবং অ্যান্ড্রয়েড উভয়টিতেই ব্যবহার করা যায়।

এই অ্যাপগুলো নিয়ে আরো তথ্য পাবেন এখানে: https://signal.org/, https://telegram.org বা https://wire.com/